রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে ত্রিপুরা সম্প্রদায়কে ঐক্যবদ্ধভাব কাজ করার আহ্বান—- পার্বত্য মন্ত্রী শ্রীমঙ্গলে অনুশীলন চক্রের বৈশাখী উৎসব সমাপ্ত জাতিসংঘে পার্বত্য শান্তিচুক্তি বাস্তবায়নের অগ্রগতি তুলে ধরলেন বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল ধান কেটে উৎসবের উদ্বোধন করলেন কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুস শহীদ ওয়াশিংটন বাংলাদেশ দূতাবাসে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত ওয়েলস আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত রাণীশংকৈলে প্রাণীসম্পদ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত ঘুষ, দূর্নীতি, অনিয়ম ও তদবির বানিজ্য বরদাশত করা হবে না ছাতকে সড়ক দুর্ঘটনায় সঙ্গীত শিল্পী পাগল হাসান সহ নিহত ২ আগামী বছর মুজিবনগর দিবসের পুর্বে মুজিবনগরকে আন্তর্জাতিক মানের পর্যটনকেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে—-আ ক ম মোজাম্মেল হক

বহিষ্কৃতদের ঢালাওভাবে দলে ফেরাতে চায়না বিএনপির তৃণমূল!

সংবাদদাতার নাম :
  • খবর আপডেট সময় : রবিবার, ২ অক্টোবর, ২০২২
  • ১০৯ এই পর্যন্ত দেখেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক: সরকার বিরোধী চূড়ান্ত আন্দোলনের প্রস্তুতি হিসেবে বিভাগীয় নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় শুরু করেছে বিএনপি। শনিবার (১ অক্টোবর) বিকেল চারটায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপার্সনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এই মতবিনিময় সভা শুরু হয়ে চলে রাত আটটা পর্যন্ত।

এতে চট্টগ্রাম ও খুলনা বিভাগের জেলা, মহানগর এবং বিভাগীয় পর্যায়ের নেতারা অংশ নেন।

অন্যদিকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী চেয়ারপার্সনের কার্যালয় থেকে ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান লন্ডন থেকে ভার্চুয়ালি এ সভায় যুক্ত থাকেন।

জানা গেছে, বিএনপির হাইকমান্ড আগামী সরকার পতনের এক দফা চূড়ান্ত আন্দোলনের জন্য নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন। নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে আগামী আন্দোলন সংগ্রামের কথা বলেছেন। বিভিন্ন কারণে যারা এতদিন দলের থেকে দূরে ছিলেন তাদের দলে ফিরিয়ে এনে সরকার বিরোধী আন্দোলনের কথা বলেন।

অন্যদিকে তৃণমূল নেতাকর্মীদের পক্ষ থেকে, মতবিনিময় সভায় অংশগ্রহণকারীরা বলেন, সরকারবিরোধী আন্দোলনের জন্য বৃহত্তর ঐক্য দরকার কিন্তু যারা দলের ক্ষতি করে গেছে, যারা ফিরলে দলের ত্যাগী কর্মীদের অস্বস্তির কারণ হবে তাদের যেন দলে জায়গা না দেয়া হয়। এছাড়া আন্দোলন দীর্ঘমেয়াদী না করে বিভাগীয় গণ সমাবেশ শেষ করে এক দেড় মাস মেয়াদি সরকার পতনের চূড়ান্ত আন্দোলনের পক্ষে তৃণমূল নেতারা মতামত দেন।

যশোর জেলা বিএনপির সদ্য সচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু বলেন, সরকার পতনের লক্ষ্যে চলমান আন্দোলন যৌক্তিক পর্যায়ে নিয়ে যেতে আমাদের আলোচনা হয়েছে। যেভাবে অগণতান্ত্রিক পরিস্থিতিতে চলছে সেভাবে চলা যায় না। তাই আন্দোলন বেগবান করতে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য আমাদের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

দলটির মিডিয়া সেলের সদস্য শায়রুল কবির খান জানান, দলের ঘোষিত কর্মসূচির সমাবেশ সফল করতেই বিভাগীয় পর্যায়ের দায়িত্বশীল নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় শুরু করেছে বিএনপি নেতারা।

এদিকে জ্বালানি তেল ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে এবং সরকারের পদত্যাগের দাবিতে রাজধানী ঢাকাসহ ১০ বিভাগীয় শহরে গণসমাবেশের ঘোষণা করেছে বিএনপি। গত ২৮ সেপ্টেম্বর দুপুরে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপার্সনের রাজনৈতিক কর্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আগামী ৮ অক্টোবর চট্টগ্রাম বিভাগে, ১৫ অক্টোবর ময়মনসিংহে, ২২ অক্টোবর খুলনা, ২৯ অক্টোবর রংপুর, ৫ নভেম্বর বরিশাল, ১২ নভেম্বর ফরিদপুর, ১৯ নভেম্বর সিলেট, ২৬ নভেম্বর কুমিল্লা, ৩ ডিসেম্বর রাজশাহী এবং ১০ ডিসেম্বর রাজধানী ঢাকায় গণসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

ইউকেবিডিটিভি/ বিডি / এমএসএম

দয়া করে খবরটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই ক্যাটাগরিতে আরো যেসব খবর রয়েছে
All rights reserved © UKBDTV.COM
       
themesba-lates1749691102