বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ০৪:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

নবীগঞ্জে সরকার প্রদত্ত বিনামুল্যের ২টি সেচ মেশিন গোপনে বিক্রির অভিযোগ

এম.এ আহমদ আজাদ, নবীগন্জ
  • খবর আপডেট সময় : বুধবার, ৮ মে, ২০২৪
  • ৪৩ এই পর্যন্ত দেখেছেন

হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জে অভিনব কায়দায় কৃষি ক্ষেত্রে বিনা মুল্যেপ্রাপ্ত সেচ মেশিন চুরি করে বিক্রি অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি নবীগঞ্জ কৃষি অফিস স্বীকার করেছে। চুরির বিষয়টি আপোষে রফাদফার জন্য সংশ্লিষ্টরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

জানাযায়, নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নে কৃষকদের কয়েকটি সমিতি রয়েছে। এসব সমিতির মধ্যে সরকার বিনামুল্যে বিভিন্ন যন্ত্রপাতি প্রদান করে আসছেন। বুধবার(৮মে) ওই ইউনিয়নের আমুকোনা কৃষক দল সমিতির সভাপতি মুরাদ সরদার ও উলুকান্দি কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক মোজাক্কির হোসেন গোপনে সরকারী ভাবে বিনা মুল্যে সমিতির নামে প্রাপ্ত উচ্চ দামের সরকারী পানি সেচের দুটি মেশিন কৌশলে সমিতির সদস্যদের না জানিয়ে নবীগঞ্জের স্বাধীন গ্যাস ও মেশিন স্টোরে সেচ মেশিন দুইটি ৬০ হাজার টাকায় বিক্রি করেন।

মেশিন গুলো বৈঠাখাল গ্রামের জিলু মিয়া নবীগঞ্জে নিয়ে বিক্রি করেন। তিনি এ-প্রতিনিধিকে জানান, আমি সরকারী মেশিন জানিনা, আমার কাছে মোরাদ ও মোজাক্কির তাদের ব্যক্তি মালিকানা মেশিন বলে বিক্রি করতে আসে তাই আমি মেশিন নিয়ে নবীগঞ্জে আসি।

নবীগঞ্জ স্বাধীন গ্যাস ও মেশিন স্টোরের মালিক স্বাধীন বাবু বলেন আমি মেশিন দুটি সরকারি বলে জানিনা।তারা আমার কাছে নিয়ে এসে বলেছে এটা কিনছে এখন বিপদে পড়ে বিক্রি করবো। খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ সেখানে উপস্থিত হলে তিন জন মেশিন রেখে পালিয়ে যায় । পরে কৃষি অফিসের লোকজন মেশিন দুটি উদ্ধার করে তাদের জিম্মায় নিয়ে আসে।
এ ব্যাপারে জানতে  ইউনিয়ন উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা জাবের আহমদ কে ফোন করা হলে তিনি বিনামুল্যে প্রাপ্ত মেশিন বিক্রির কথা স্বীকার করে বলেন আমরা চোরাই মেশিন উদ্ধার করে আমাদের জিম্মায় নিয়ে এসেছি। বিষয়টি আমরা বসে আপোষে মিমাংসা করে দিবো, কোন মামলা মোকাদ্দমা দরকার নেই।
উলুকান্দি কৃষকদল সমিতির সভাপতি আব্দুর রকিব বলেন, তার সমিতির সাধারণ সম্পাদক চুরি করে মেশিন বিক্রি করলে পরে প্রশাসনের লোকজন সেটি উদ্ধার করে তাদের কাছে ফেরত পাঠিয়েছেন।
আমুকোনা কৃষক দল সমিতির সভাপতি মুরাদ সরদার বলেন, আমি সমিতির মেশিনটি বিক্রি করে অন্য কাজ করতে চেয়ে ছিলাম। কৃষি অফিসের সাথে আমার ভুল বুঝাবুঝি হয়েছে। আমি বিষয়টি শেষ করার জন্য চেষ্টা করছি।
এব্যাপারে এএসআই বদরুল জানান তিনি সরকারী বিনামুল্যের মেশিন চুরি করে বিক্রির খবর পেয়ে গিয়ে কাউকে পাননি। এ বিষয়ে কৃষি অফিসের লোকজন লিখিত অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নিবো।
নবীগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকতা শেখ ফজলুল হক মনি বলেন, খবর পেয়ে তাৎক্ষনিকভাবে ব্যবস্থা নিয়েছি। কোন বিনা মুল্যের মেশিন বিক্রি করা দন্ডণীয় অপরাধ, আমরা এই বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নিবো।

দয়া করে খবরটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই ক্যাটাগরিতে আরো যেসব খবর রয়েছে
All rights reserved © UKBDTV.COM
       
themesba-lates1749691102