বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ০৪:২৯ অপরাহ্ন

শুরু হতে যাচ্ছে এশিয়ার ক্রিকেট ‘যুদ্ধ’

স্পোর্টস ডেস্ক
  • খবর আপডেট সময় : বুধবার, ৩০ আগস্ট, ২০২৩
  • ৮৩ এই পর্যন্ত দেখেছেন

শব্দটা বাংলাদেশের অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের একদমই পছন্দ নয়, ‘এশিয়ান রাইভারি’। কিন্তু পছন্দ না হলেও মাঠে তো নিশ্চয়ই এই প্রতিদ্বন্দ্বীতা এড়াতে পারেন না সাকিবও।

প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে জার্সি খুলে দৌড়ানোর চিত্রটা নিশ্চয়ই চোখে ভাসছে? কিংবা সোহানের আঙুল তুলে থিসারা পেরেরাকে শাসানো, নাজমুল ইসলাম অপুর নাগিন নৃত‌্যর জবাবে শ্রীলঙ্কার ড্রেসিংরুমে একই শো!

আরো ভেতরে গেলে দেখা মিলবে কঠিন থেকে কঠিনতম দৃশ‌্য। জাভেদ মিঁয়াদাদের শারজাহতে সেই লাফ, আমির সোহেল চার মেরে ভেঙ্কটেস প্রসাদকে বল কুড়িয়ে আনতে পাঠানোর বার্তা কিংবা শহীদ আফ্রিদি ও গৌতম গম্ভীরের শারীরিক আক্রমণ! হারভাজন সিং পেসার শোয়েব আক্তারকে ছক্কা মেরে বিমর্ষ করে দেওয়ার সেই চাহনি…এসব-ই তো সেই প্রতিদ্বন্দ্বীতার সমার্থক শব্দ।

একটা সময় এই রাইভারি বা প্রতিদ্বন্দ্বীতা যাই বলি না কেন তা কেবল ভারত-পাকিস্তানের মধ‌্যেই সীমাবদ্ধ ছিল। এখন তা গভীরভাবে ছড়িয়ে পড়েছে শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের ভেতরে। এশিয়ার দলগুলোর মাঠের সেই ক্রিকেট ‘যুদ্ধ’ শুরু হচ্ছে বুধবার থেকে।

পাকিস্তান-নেপাল ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠতে যাচ্ছে ষোলতম এশিয়া কাপের আসর। ছয় জাতির টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ খেলছে ‘বি’ গ্রুপে। সাকিবদের প্রতিপক্ষ হিসেবে গ্রুপে রয়েছে ছয়বারের চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তান। ‘এ’ গ্রুপে রয়েছে সর্বোচ্চ সাতবারের চ্যাম্পিয়ন ভারত, দুইবারের চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান ও আইসিসি সহযোগী দেশ নেপাল।

এবারের ‘হাইব্রিড’ এশিয়া কাপের ভেন‌্যু পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা। আসরের মূল আয়োজক ছিল পাকিস্তান। কিন্তু ভারত পাকিস্তানের মাটিতে খেলতে রাজি নয়। ফলে অনিচ্ছায় পিসিবি শ্রীলঙ্কার সঙ্গে টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে যাচ্ছে।

বুধবার মুলতানে পাকিস্তান ও নেপালের ম‌্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় দুপুর সাড়ে তিনটায়। দ্বিতীয় দিনই মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ক্যান্ডির পাল্লেকেলে স্টেডিয়ামে সাকিব ব্রিগেডের প্রতিপক্ষ স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা। গতকাল শ্রীলঙ্কায় পৌঁছে হোটেলেই সারাদিন কাটিয়েছে বাংলাদেশ। আজ ছিল দলের অনুশীলন। সেখানে সাকিবের দল ঘাম ঝরিয়ে নিজেদের সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নিয়েছেন।

হাইব্রিড মডেলের কারণে টুর্নামেন্টের ১৩টি ম্যাচের মাত্র ৪টি ম্যাচ পাকিস্তানে এবং বাকী ৯টি হবে শ্রীলংকার মাটিতে। নিজেদের সবগুলো ম্যাচ শ্রীলংকায় খেলবে ভারত। ১৭ সেপ্টেম্বর টুর্নামেন্টের ফাইনাল হবে শ্রীলংকার কলম্বোতে।

নেপাল কোয়ালিফাইং রাউন্ড পেরিয়ে মূল প্রতিযোগিতায় আসলেও তাদের এখানে কঠিন পথ পাড়ি দিতে হবে। প্রথম ম‌্যাচেই তাদের সামনে বিশ্বের এক নম্বর ওয়ানডে দল। কিছুদিন আগে আফগানিস্তানকে ৩-০ ব‌্যবধানে হোয়াইটওয়াশ করে পাকিস্তান ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষে উঠেছে। ব‌্যাটি-বোলিংয়ে দুই বিভাগেই ভারসাম‌্যপূর্ণ দল ৯২’র বিশ্বচ‌্যাম্পিয়নরা। নিজেদের ফুরফুরে রাখতে মঙ্গলবার রাতেই তারা একাদশ সাজিয়ে ঘোষণা দিয়েছে। মানসিকভাবে ক্রিকেটাররা যেন নিজেদের প্রস্তুত করতে পারে সেজন‌্য আগেভাবেই তাদের জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

অন‌্যদিকে র‌্যাংকিংয়ে নেপালের অবস্থান ১৫তম স্থানে।   ২০১৮ সালে ওয়ানডে মর্যাদা পাবার পর এখন পর্যন্ত ৫৭ ম্যাচ খেলেছে তারা। এরমধ্যে ৩০টিতে জয় ও ২৫টিতে হার রয়েছে। ১টি করে ম্যাচ টাই ও পরিত্যক্ত হয় নেপালের। এবারই প্রথম পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে নেপাল। এখন পর্যন্ত আইসিসির পূর্ণ সদস্য দলগুলোর মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, জিম্বাবুয়ে ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে খেলেছে হিমালয়ের দেশটি। অভিজ্ঞতায় তারা বেশ পিছিয়ে বলার অপেক্ষা রাখে না।

এশিয়ার বিশ্বকাপ হিসেবে খ‌্যাত এশিয়া কাপের শুরুর লড়াইটা সাদামাটা হলেও এরপর আসল উন্মাদনা শুরু হবে। তবে নেপাল মাঠের ক্রিকেটে পাকিস্তানকে হারিয়ে দিলে ‘এশিয়ান রাইভারি’ শুরু হয়ে যাবে বুধবার থেকেই।

নিউজ /এমএসএম

দয়া করে খবরটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই ক্যাটাগরিতে আরো যেসব খবর রয়েছে
All rights reserved © UKBDTV.COM
       
themesba-lates1749691102