বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০১:২০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মধ্যরাতেও বিদ্যুৎহীন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় আশুরায় যেভাবে পতন ঘটেছিল ফেরাউনের ব্রিটেনকে ‘সত্যিকারের ইসলামপন্থি’ দেশ বলে বিতর্কের মুখে ট্রাম্পের রানিংমেট কোটা আন্দোলনে প্রাণহানির তদন্ত চায় জাতিসংঘ শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্রে মানববন্ধন শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার আহ্বান পুলিশের লন্ডনে আল্লামা দুবাগী ছাহেব কিবলাহ (রহ.)’র ঈসালে সাওয়াব মাহফিল অনুষ্ঠিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাতির উদ্দেশে দেয়া পূর্ণাঙ্গ ভাষণ বিশ্ব মিডিয়ায় গুরুত্ব পাচ্ছে বাংলাদেশে কোটা আন্দোলনে সহিংসতা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ‘কমপ্লিট শাটডাউনে’ সমর্থন বিএনপির

সংসদের শেষ অধিবেশন অক্টোবরে

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • খবর আপডেট সময় : সোমবার, ২৮ আগস্ট, ২০২৩
  • ১৩০ এই পর্যন্ত দেখেছেন

চলতি একাদশ সংসদের মেয়াদ পাঁচ বছর পূর্ণ হবে আগামী বছরের ২৯ জানুয়ারি। সংবিধান অনুযায়ী, সংসদের মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার আগের ৯০ দিনের মধ্যে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন করতে হবে। আগামী ১ নভেম্বর থেকে এই ৯০ দিন গণনা শুরু হবে। তার আগে চলতি সংসদের ২৪তম অধিবেশন বসছে আগামী ৩ সেপ্টেম্বর। আর এই সংসদের শেষ অধিবেশন বসবে আগামী অক্টোবরের শেষ ভাগে। আমাদের সময়কে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে সংসদ সচিবালয় সূত্র।

সংসদ সচিবালয় সূত্র জানায়, বছরের সেপ্টেম্বরে বসা অধিবেশনের মেয়াদ সাধারণত খুবই সংক্ষিপ্ত হয়। অধিবেশন শুরুর কিছুক্ষণ আগে সংসদের কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে অধিবেশন কত দিন চলবে, তা ঠিক করা হবে। এ অধিবেশন ৫ কার্যদিবস চলতে পারে। এ অধিবেশনে পাসের জন্য প্রস্তুত রয়েছে তিনটি বিল। এ ছাড়া ৫টি বিল উত্থাপন হতে পারে। সে তালিকায় নেই আলোচিত সাইবার সিকিউরিটি আইন। আগামী অক্টোবরে বসবে বর্তমান সরকারের চলতি মেয়াদের শেষ অধিবেশন। সরকার চাইলে সেই অধিবেশনে গুরুত্বপূর্ণ বিল উত্থাপন ও পাস হতে পারে।

গত ৬ জুলাই জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশন শেষ হয়। সংবিধান অনুসারে, একটি অধিবেশন শেষ হওয়ার দিন এবং পরবর্তী অধিবেশনের প্রথম বৈঠকের মধ্যে ৬০ দিনের বেশি বিরতি দেওয়া যাবে না। তবে এই বিধান সংসদের মেয়াদ পূর্তির আগের ৯০ দিনের (পরবর্তী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময়) ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়। সেই হিসাবে সেপ্টেম্বরের অধিবেশনের পর আর সংসদের অধিবেশন ডাকার সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা থাকছে না। তবে গুরুত্বপূর্ণ আইন পাসের জন্য অক্টোবরের শেষ ভাগে অধিবেশন বসতে পারে বলে জানা গেছে।

আগামী ডিসেম্বরের শেষ দিকে কিংবা জানুয়ারির প্রথম দিকে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে পারে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহ কিংবা জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে নির্বাচন হতে পারে। সিইসি বলেন, তফসিল কবে হতে পারে সে সিদ্ধান্ত কমিশনসভায় হবে। সেটি নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহেও হতে পারে। সাধারণত ৫০-৬০ দিন আগে তফসিল হয়।

জানা গেছে, সেপ্টেম্বরে আগামী অধিবেশনে পাস হতে পারে সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক কল্যাণ ট্রাস্ট বিল-২০২৩, বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন বিল-২০২৩ ও পারিবারিক আদালত বিল-২০২৩। এ ছাড়া উত্থাপন হতে পারে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল (সংশোধন) বিল-২০২৩, বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা (সংশোধন) বিল-২০২৩, বাংলাদেশ ডেইরি উন্নয়ন বোর্ড বিল-২০২৩, জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন বিল-২০২৩ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ^বিদ্যালয় (সংশোধন) বিল-২০২৩।

এদিকে ব্যাপক সমালোচনার মুখে বিতর্কিত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে বাদ দিয়ে ‘সাইবার নিরাপত্তা আইন’ নামে নতুন আইন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ৭ আগস্ট মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। এর পর ৯ আগস্ট আইনটির খসড়া আইসিটি

বিভাগের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে অংশীজনদের মতামত চাওয়া হয়। এই আইন আগামী অধিবেশনে উত্থাপনের জন্য এখনো প্রস্তুত হয়নি বলে জানা গেছে।

গত ২৫ জুলাই ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের মানবাধিকারবিষয়ক বিশেষ প্রতিনিধি ইমন গিলমোরের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল সচিবালয়ে আইনমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন। পরে আইনমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি উনাকে বলেছি আমরা ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট সংশোধন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আগামী সেপ্টেম্বরে জাতীয় সংসদে উত্থাপন করা হবে এবং সেপ্টেম্বরেই সংসদে পাস করা হবে বলে আমরা আশা করছি।

সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তারা জানান, একটি আইন পাস হতে হলে প্রথমে উত্থাপন করতে হয়। উত্থাপন হলে পর্যালোচনার জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় সম্পর্র্কিত সংসদীয় কমিটিতে পাঠানো হয়। কমিটি চূড়ান্ত রিপোর্ট দিলে পাসের জন্য উত্থাপন ও পাস করা হয়।

নিউজ /এমএসএম

দয়া করে খবরটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই ক্যাটাগরিতে আরো যেসব খবর রয়েছে
All rights reserved © UKBDTV.COM
       
themesba-lates1749691102