বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৫:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ছাত্র আন্দোলনের নামে নাশকতাকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা—-ব্যারিস্টার মো. হারুন অর রশিদ দেশকে বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন করতেই বিএনপি-জামায়াতের কর্মীরা কেন্দ্রীয় ডাটা সেন্টার জ্বালিয়ে দিয়েছে—-তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী প্রেসিডেন্ট প্রার্থীতা থেকে সরে দাঁড়ালেন বাইডেন দেশব্যাপী নাশকতায় বিএনপি-জামায়াত জড়িত আরো তিন দিনের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত ফিফা র‍্যাংকিংয়ে সেরা আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল কোথায়? শিক্ষার্থীদের লাশ বানিয়ে ফায়দা লোটার অপচেষ্টায় বিএনপি-জামায়াত: কাদের পরিস্থিতি বুঝে মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ করা হয়েছে : পলক কোটা আন্দোলনকারীদের প্রস্তাব গ্রহণ করেছেন প্রধানমন্ত্রী: আইনমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনার জন্য দুই মন্ত্রীকে দায়িত্ব দিলেন প্রধানমন্ত্রী

কান্নাকাটি করে ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পান নায়িকা!

বিনোদন ডেস্ক
  • খবর আপডেট সময় : শুক্রবার, ৫ জুলাই, ২০২৪
  • ২২ এই পর্যন্ত দেখেছেন

অভিনয়ের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে বিদেশে চাকরি ছেড়ে মুম্বাইয়ে পারি জমান সোনিয়া রাঠি। অভিনেতা জন আব্রাহমের ছবির হাত ধরে বলিপাড়ায় আত্মপ্রকাশ করেন তিনি।

১৯৯৬ সালের ২৫ ডিসেম্বর হরিয়ানায় জন্ম সোনিয়ার। সেখানে বাবা-মা এবং ভাইয়ের সঙ্গে থাকতেন তিনি। তার ভাই অঙ্কুর রাঠি পেশায় অভিনেতা। ‘দ্য তাশকেন্ট ফাইল্স’ ‘মিশন ওভার মার্স’-এর মতো ছবির পাশাপাশি ‘ফোর মোর শট্স প্লিজ়’ এবং ‘আনদেখি’র মতো সিরিজে অভিনয় করেছেন অঙ্কুর।

শৈশব থেকেই অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ ছিল সোনিয়ার। কিন্তু সোনিয়াকে তার মা বলেছিলেন, যত দিন না পাকাপাকি ভাবে কোনও চাকরি পাচ্ছেন তত দিন যেন অভিনয় নিয়ে কেরিয়ার তৈরির কথা না ভাবেন। মায়ের কথা মেনে পড়াশোনায় মন দেন সোনিয়া। হরিয়ানায় জন্ম হলেও পরিবার সমেত আমেরিকার ক্যালিফর্নিয়ায় চলে যান সোনিয়া। ফিন্যান্স এবং মার্কেটিং নিয়ে সেখানকার কলেজ থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি।

কলেজের পড়াশোনা শেষ করার পর নিউ ইয়র্কে একটি বেসরকারি সংস্থায় চাকরি করতে শুরু করেন সোনিয়া। কিন্তু চাকরিতে মন বসছিল না তার। চাকরির পাশাপাশি অভিনয় শিখতে শুরু করেন তিনি। নাচের একটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রও খোলেন। এক বছর পর চাকরি ছেড়ে মুম্বই চলে যান সোনিয়া। মুম্বই যাওয়ার পর নানা জায়গায় অডিশন দিতে শুরু করেন তিনি।

২০১৪ সালে ‘মিস্টার ব্রাউন’ নামের একটি স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবিতে প্রোডাকশন ডিজাইন বিভাগে সহকারী হিসেবে কাজ করেন তিনি। একই বছর ‘১০০: দ্য ট্রিবিউট’ ছবিতে কেশসজ্জাশিল্পী হিসাবে কাজ করেন সোনিয়া।

২০১৫ সালে ‘দ্য র‌্যাট’ নামের স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবিতে সহকারী সজ্জাশিল্পী হিসাবে কাজের সুযোগ পান সোনিয়া। তিন বছর পর ২০১৮ সালে ‘নাইট এনকাউন্টার্স’ নামে একটি স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবিতে অভিনয় করতে দেখা যায় তাকে।

নিজের নামে ইউটিউবে একটি চ্যানেল খোলেন সোনিয়া। হিন্দি গানের ছন্দে নাচ করে সেই ভিডিও নিজের চ্যানেলে পোস্ট করেন। ২০২০ সালের জুলাই মাসে এক জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওতে দেখা যায় তাকে। খ্যাতনামী র‌্যাপ সঙ্গীতশিল্পী বাদশার একটি মিউজিক ভিডিওতে অভিনয় করতে দেখা যায় সোনিয়াকে।

এক পুরনো সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছিলেন, তিনি যখন অভিনয় শুরু করেন তখন তার ওজন ৯০ কেজি ছিল। বহু পরিশ্রম করে নিজের ওজন কমিয়েছিলেন তিনি। ইংরেজির পাশাপাশি স্প্যানিশ ভাষায় দক্ষ হয়ে ওঠেছেন। নতুন পরিবেশে মানিয়ে নিতে অসুবিধা হচ্ছিল তার।

সোনিয়া বলেন, ‘আমি জীবনের অনেকটা সময় ক্যালিফর্নিয়ায় কাটিয়েছি। তার পর আমি নিউ ইয়র্ক চলে যাই। দেশে ফেরার পর এখানকার মানুষের কাজ করার পদ্ধতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে প্রথম প্রথম খুব অসুবিধা হয়েছিল। বিদেশে ইমেল মারফত কাজসংক্রান্ত দরকারি কথাবার্তা হয়। কিন্তু এখানে সবকিছুই হোয়াটস্অ্যাপে। এ রকম ছোটখাটো বিষয় ছিল। তবে এখন এই শহরই আমার বাড়ি হয়ে গেছে।’

২০২১ সালে ‘ব্রোকেন বাট বিউটিফুল’ সিরিজের তৃতীয় সিজনে অভিনয়ের মাধ্যমে ওটিটির পর্দায় আত্মপ্রকাশ করেন সোনিয়া। সিদ্ধার্থ শুক্লের বিপরীতে অভিনয় করতে দেখা যায় তাকে। গুঞ্জণ শোনা যায়, ‘ব্রোকেন বাট বিউটিফুল’-এর তৃতীয় সিজনে সিদ্ধার্থের বিপরীতে অভিনয় করার কথা ছিল শেহনাজ গিলের। কিন্তু সেই চরিত্রের জন্য পরে সোনিয়াকে অভিনয়ের প্রস্তাব দেন নির্মাতারা। ২০২১ সালে ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পায় ‘ডিকাপল্‌ড’ নামের একটি ওয়েব সিরিজ। সেখানে আর মাধবন এবং সুরভিন চাওলার মতো তারকাদের সঙ্গে অভিনয়ের সুযোগ পান সোনিয়া।

২০২২ সালে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় ‘তারা ভার্সেস বিলাল’। এই ছবির প্রযোজনার দায়িত্বে ছিলেন বলি অভিনেতা জন আব্রাহম। জন প্রযোজিত ছবির মাধ্যমেই বড় পর্দায় যাত্রা শুরু করেন সোনিয়া। এই ছবিতে হর্ষবর্ধন রানের সঙ্গে অভিনয় করতে দেখা যায় তাকে।

এক পুরনো সাক্ষাৎকারে সোনিয়া বলেছিলেন, ‘আমি কান্নাকাটি করে ‘তারা ভার্সেল বিলাল’ ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছি। অডিশন দেয়ার সময় আমায় নানা রকম ভাবে কাঁদতে বলা হয়েছিল। আমার কান্না দেখেই ছবিনির্মাতারা আমায় অভিনয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। ছবিতেও আমায় বেশির ভাগ সময় কান্নাকাটি করতেই দেখা গিয়েছিল।’

তামিল এবং তেলুগু সিনেমার জগতে জনপ্রিয় অভিনেতা সন্দীপ কিষণ। গুঞ্জন শোনা যায়, দক্ষিণী তারকা সন্দীপের সঙ্গে নাকি সম্পর্কে ছিলেন সোনিয়া। তবে এই বিষয়ে দু’জনের কেউই মুখ খোলেননি। ২০২২ সালের পর সোনিয়াকে আর অভিনয় করতে দেখা যায়নি। তবে সমাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সক্রিয় থাকেন তিনি। অভিনেত্রীর ব্যাক্তিগত জীবনের খুঁটিনাটিও এখানেই ধরা পড়ে। ইতোমধ্যে ইনস্টাগ্রামে সোনিয়ার অনুগামীর সংখ্যা চার লাখের গণ্ডি পার করে ফেলেছে।

নিউজ /এমএসএম

দয়া করে খবরটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই ক্যাটাগরিতে আরো যেসব খবর রয়েছে
All rights reserved © UKBDTV.COM
       
themesba-lates1749691102