শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ওয়াশিংটন বাংলাদেশ দূতাবাসে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত ওয়েলস আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত রাণীশংকৈলে প্রাণীসম্পদ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত ঘুষ, দূর্নীতি, অনিয়ম ও তদবির বানিজ্য বরদাশত করা হবে না ছাতকে সড়ক দুর্ঘটনায় সঙ্গীত শিল্পী পাগল হাসান সহ নিহত ২ আগামী বছর মুজিবনগর দিবসের পুর্বে মুজিবনগরকে আন্তর্জাতিক মানের পর্যটনকেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে—-আ ক ম মোজাম্মেল হক বৃহস্পতিবার থেকে দেশব্যাপী প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী শুরু পঞ্চগড়ে সময় টিভির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্‌যাপিত লোকসভা নির্বাচন উপলক্ষে বাংলাবান্ধা চেকপোস্ট ৩ দিনের ছুটি নবীগঞ্জে লটারির মাধ্যমে কৃষকের তালিকা তৈরী

ব্রিফিংয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিষেধাজ্ঞা দেবে কিনা জানি না, তাদের সঙ্গে আলোচনা হচ্ছে

কূটনৈতিক প্রতিবেদক
  • খবর আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১২ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৪১ এই পর্যন্ত দেখেছেন

মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে কিছুই জানেন না দাবি করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. আব্দুল মোমেন বলেন, ‘নিষেধাজ্ঞা দেবে কি দেবে না তা-ও জানি না। তবে তাদের সঙ্গে আমাদের প্রচুর আলোচনা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) মার্কিন উপসহকারী মন্ত্রী আফরিন আক্তারের সঙ্গে বৈঠক শেষে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাপ্তাহিক ব্রিফিংয়ে কথা এসব কথা বলেন।

ড. মোমেন বলেন, ‘দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পর্যবেক্ষক দল এলে ভালো, না এলে আমরা তাদের বিশেষভাবে অনুরোধ করব না। নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে বলে আমাদের আত্মবিশ্বাস আছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা কারও দলে নেই, কারও লেজুড় হতে চাই না। আমরা ছোট দেশ হয়েও বড় দেশের কথা শুনি না। আমরা তাদের জিনিস কিনি না, এ জন্য একটু বেড়াজালে আছি। তবে সব ঠিক হয়ে যাবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের দেশে কিছু লোক আছে যারা বিদেশিদের কাছে ভুল তথ্য তুলে ধরে। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আমেরিকার অ্যাকশন সিকিউরিটি অফিসার সদলবলে আসেন। অ্যাডভাইজারও ছিলেন। তারা মাঝপথে থেমে গেছে বলে যে সংবাদ বেরিয়েছে তা মিথ্যা ও বানোয়াট।

বাংলাদেশের আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই সরব যুক্তরাষ্ট্র। গত মে মাসে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন বাংলাদেশের জন্য নতুন ভিসা নীতি ঘোষণা করেন। এ নীতির অধীনে বাংলাদেশের ‘গণতান্ত্রিক নির্বাচন প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্ত করার জন্য দায়ী’ ব্যক্তিদের যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা না দেয়ার ঘোষণা দেয়া হয়।

এরপর প্রধানমন্ত্রীর নিউ ইয়র্ক সফরের মধ্যেই গত ২২ সেপ্টেম্বর মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথু মিলার জানান, সেই ভিসা নীতি আরোপ শুরু করেছে তার দেশ। যাদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে, তাদের মধ্যে ক্ষমতাসীন এবং বিরোধীদলীয় নেতাকর্মী এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা আছেন। এসব ব্যক্তির পাশাপাশি তাদের পরিবারের সদস্যরাও যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের অযোগ্য হতে পারেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ওই নিষেধাজ্ঞাকে ‘অপ্রাসঙ্গিক’ আখ্যা দিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমি প্রশ্ন করেছিলাম, তোমরা স্যাংশন দিয়ে কোন দেশে গণতন্ত্র এনেছ বলতো? তোমাদের এই স্যাংশন, কোথায় তোমরা দিয়েছিলা… নাইজেরিয়ায়, কম্বোডিয়ায়, হাঙ্গেরি, কোথাও কি তোমরা সফল হয়েছ?

‘বললো যে, তার কোনো প্রমাণ নাই। সুতরাং, এগুলো অকারণ, এগুলো হচ্ছে উত্তেজনা সৃষ্টি করার চেষ্টা।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, উন্নয়নের মাধ্যমে পৃথিবীর মধ্যে ‘ভালো অবস্থান’ করায়, ভৌগোলিকভাবে ‘কৌশলগত’ অবস্থান এবং স্বাধীন পররাষ্ট্রনীতির কারণে বাংলাদেশ অনেকের ‘চক্ষুশূল’ হয়েছে।

নিউজ /এমএসএম

দয়া করে খবরটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই ক্যাটাগরিতে আরো যেসব খবর রয়েছে
All rights reserved © UKBDTV.COM
       
themesba-lates1749691102