বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০২:৪৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মধ্যরাতেও বিদ্যুৎহীন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় আশুরায় যেভাবে পতন ঘটেছিল ফেরাউনের ব্রিটেনকে ‘সত্যিকারের ইসলামপন্থি’ দেশ বলে বিতর্কের মুখে ট্রাম্পের রানিংমেট কোটা আন্দোলনে প্রাণহানির তদন্ত চায় জাতিসংঘ শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্রে মানববন্ধন শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার আহ্বান পুলিশের লন্ডনে আল্লামা দুবাগী ছাহেব কিবলাহ (রহ.)’র ঈসালে সাওয়াব মাহফিল অনুষ্ঠিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাতির উদ্দেশে দেয়া পূর্ণাঙ্গ ভাষণ বিশ্ব মিডিয়ায় গুরুত্ব পাচ্ছে বাংলাদেশে কোটা আন্দোলনে সহিংসতা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ‘কমপ্লিট শাটডাউনে’ সমর্থন বিএনপির

ব্রিটেনে পরিকল্পনামন্ত্রী

বাংলাদেশে নিষেধাজ্ঞা দিতে পারে ইউরোপীয় ইউনিয়ন

যুক্তরাজ্য অফিস
  • খবর আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৫১ এই পর্যন্ত দেখেছেন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মতো না হলেও অন্যভাবে বাংলাদেশের ওপর ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) নিষেধাজ্ঞা দিতে পারে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। গত মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যের লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবে লন্ডনে কর্মরত বাংলাদেশি প্রবাসী সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ কথা জানান তিনি।

মার্কিন ভিসানীতির ব্যাপারে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘ভিসানীতি আমাদের কিছু করতে পারবে না। ভিসানীতি নির্বাচন কমিশনের কোনো আইন নয়। নির্বাচন কমিশনের আইন আর আমাদের দেশের আইন আমাদের ভোটিং বা যাই বলুন এফেক্ট করতে পারে।’

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যে ভিসানীতি ঘোষণা করেছে, তার তালিকা আপনাদের কাছে আছে কি না। তাতে আপনার নাম আছে কি না?- এমন প্রশ্নের জবাবে এম এ মান্নান বলেন, ‘আই হ্যাভ নো আইডিয়া (আমার কোনো ধারণা নাই)।

যুক্তরাষ্ট্রের অনেক মিত্র দেশ আছে, তারা এই পর্যায়ে (ভিসানীতি দেওয়া) যাবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘আমি শুনেছিলাম প্রথমে আরও দুই-চারটি রাষ্ট্রের ওপর নাকি আছে। আই অ্যাম নট ভেরি ক্লিয়ার (আমি খুব বেশি পরিষ্কার নই)।

অন্যান্য রাষ্ট্র বাংলাদেশের ওপর দেবে কি না- এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘প্রত্যেক রাষ্ট্রের একটি কৌশল আছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের একটা…, নামই বলে ফেললাম। তারা হয়তো অন্যদিকে করবে। নট নেসেসারি আমেরিকান ওয়ে (যুক্তরাষ্ট্রের মতো নয়)। যার যার মতো।

বিএনপিকে নির্বাচনে আনার ব্যাপারে আপনাদের উদ্যোগ আছে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে এম এ মান্নান বলেন, ‘তাদেরকে আনা না আনার ব্যাপারে আমরা গার্ডিয়ান (অভিভাবক) নই। আমরা তাদের দল সৃষ্টি করি নাই, তারাই তাদের দল সৃষ্টি করেছে। তাদের কর্মসূচি আছে, ম্যানিফেস্টো (ইশতেহার) আছে, অনুষ্ঠান আছে। তাদের আছে, আমাদেরও আছে, অন্যান্য দলেরও আছে। সব দলকে মানতে বাধ্য- সংবিধান, রাষ্ট্র, সরকার।

তিনি বলেন, ‘তারা (বিএনপি) আসবে, সরকার গঠন করেছে অতীতে। আবার করুক ভোট নিয়ে এসে। কিন্তু সংবিধানকে অবজ্ঞা করে, আইন-কানুন না মেনে, নির্বাচন কমিশনকে অস্বীকার করে এবং বলে, ‘এ থাকলে নির্বাচন করব না, ওমুক প্রধানমন্ত্রী থাকলে আমরা নাই’,- এই ধরনের হঠকারী বক্তব্য কোনো দলীয় বা পার্লামেন্টারি ডেমোক্রেসি অথবা গণতন্ত্রের ভাষা না।

নিউজ/ যুক্তরাজ্য / কেএলি

দয়া করে খবরটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই ক্যাটাগরিতে আরো যেসব খবর রয়েছে
All rights reserved © UKBDTV.COM
       
themesba-lates1749691102