রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:০৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে ত্রিপুরা সম্প্রদায়কে ঐক্যবদ্ধভাব কাজ করার আহ্বান—- পার্বত্য মন্ত্রী শ্রীমঙ্গলে অনুশীলন চক্রের বৈশাখী উৎসব সমাপ্ত জাতিসংঘে পার্বত্য শান্তিচুক্তি বাস্তবায়নের অগ্রগতি তুলে ধরলেন বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল ধান কেটে উৎসবের উদ্বোধন করলেন কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুস শহীদ ওয়াশিংটন বাংলাদেশ দূতাবাসে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত ওয়েলস আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত রাণীশংকৈলে প্রাণীসম্পদ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত ঘুষ, দূর্নীতি, অনিয়ম ও তদবির বানিজ্য বরদাশত করা হবে না ছাতকে সড়ক দুর্ঘটনায় সঙ্গীত শিল্পী পাগল হাসান সহ নিহত ২ আগামী বছর মুজিবনগর দিবসের পুর্বে মুজিবনগরকে আন্তর্জাতিক মানের পর্যটনকেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে—-আ ক ম মোজাম্মেল হক

দুই সপ্তাহের মধ্যে কৃতি

দুই সহোদরের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া

কাওসার ইকবাল
  • খবর আপডেট সময় : শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ১০২ এই পর্যন্ত দেখেছেন

মৌলভীবাজারের কৃতি সন্তান বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী ড. খলিলুর রহমান আর নেই। শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় মৌলভীবাজারের নিজ বাসভবনে তিনি ইন্তেকাল করেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নাইলাহি রাজিউন।

তিনি ছিলেন শাহ জালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কেমিস্ট্রি বিভাগের সাবেক ডিন, নর্থ ইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় সিলেটের সাবেক উপাচার্য, শাহজালাল ইউনিভার্সিটির সাবেক ভাইস চ্যান্সেলার, বাহারমর্দান জয়গুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের আজীবন দাতা সদস্য। মৌলভীবাজার সদরের বাহারমর্দন এলাকার নিবাসী ড. খলিলুর রহমান সদ্য প্রয়াত মৌলভীবাজার সদর উপজেলার প্রথম নির্বাচিত চেয়ারম্যান মেজর(অব:) খালিদুর রহমানের বড়ভাই। মেজর(অব:) খালিদুর রহমান গত সোমবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকাল ৭টা ২০ মিনিটের সময় সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন।

তিনি ঢাকা ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ থেকে ১৯৬৫ সালে ইন্জিনিয়ারিং পাস করেন, তখনো “বুয়েট” নামাকরণ হয়নি। এরপর ইঞ্জিনিয়ার মেজর খালিদুর রহমান পাকিস্তান মিলিটারী ইন্জিনিয়ারিং কোরে যোগদান করেন। পৃথিবীর সবচাইতে ভয়ঙ্কর রাস্তার নাম কারাকোরাম হাইওয়ে। রাস্তাটি পাকিস্তান থেকে চীনের উইঘর জিনজিয়াং প্রদেশে গিয়েছে। পর্বতের উপর দিয়ে নির্মিত এই রাস্তাটির সর্বচ্চো উচ্চতা ১৫০০০ হাজার ফুট। অনেকে এই রাস্তাটিকে পৃথিবীর অষ্টম আশ্চর্যও বলে থাকেন। সেই রাস্তা নির্মাণের ইন্জিনীয়ারদের একজন ছিলেন মেজর খালেদ। তাঁর এই অবদানের জন্য সেই রাস্তার একটি ব্রীজের নামাকরণ হয়েছে ‘ক্যাপ্টেন খালেদ ব্রীজ’। তখন তিনি পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে ক্যাপ্টেন ছিলেন।

স্বল্প সময়ের ব্যবধানে দেশের খ্যাতীমান দুই সহোদরকে হারিয়ে স্বজনরা বাকরূদ্ধ। এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া। মরহুমদের আত্মার শান্তি কামনার জন্য পরিবারের পক্ষ থেকে অনুরুধ করা হয়েছে।

নিউজ /এমএসএম

দয়া করে খবরটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই ক্যাটাগরিতে আরো যেসব খবর রয়েছে
All rights reserved © UKBDTV.COM
       
themesba-lates1749691102