বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ০৪:৩৫ অপরাহ্ন

বাইডেন, সুনাক, শেখ হাসিনার অভ্যর্থনার দায়িত্বে কারা?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • খবর আপডেট সময় : শুক্রবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৬১ এই পর্যন্ত দেখেছেন

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নন। নন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করও। শুক্রবার সন্ধ্যায় দিল্লি বিমানবন্দরে পুরোদস্তুর কূটনৈতিক প্রোটোকল মেনেই আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে স্বাগত জানাতে যাবেন বেসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রী জেনারেল (অবসরপ্রাপ্ত) ভিকে সিংহ। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রের বরাতে এ খবর জানানো হয়েছে।

বাইডেনের পাশাপাশি জি২০ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে আসা চিনা প্রধানমন্ত্রী লি কিয়াংকেও দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে স্বাগত জানাতে হাজির থাকবেন ভিকে। খবর আনন্দবাজারের।

নয়াদিল্লির প্রগতি ময়দানের ভারত মণ্ডপম কনভেনশন সেন্টারে জি২০ শীর্ষ সম্মেলন শুরুর আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক পার্শ্ববৈঠক করবেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রের খবর, শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিনিটে বাইডেনের বিমান দিল্লি বিমানবন্দরে নামবে। সেখান থেকে তিনি যেতে পারেন আইটিসি মৌর্য শেরাটনে। বাইডেন এবং তাঁর প্রতিনিধি দলের জন্য হোটেলের প্রায় ৪০০টি ঘর ভাড়া নেওয়া হয়েছে। আগামী দু’দিন সেখানেই তাঁরা থাকবেন। রাতে মোদীর সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি।

২০১৭ সালে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানাতে প্রোটোকল ভেঙে দিল্লি বিমানবন্দরে হাজির হয়েছিলেন মোদী। ২০১৮ সালে ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুকেও মোদী নিজেই বিমানবন্দরে অভ্যর্থনা জানাতে গিয়েছিলেন। জি২০ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে আসা রাষ্ট্রনেতাদের জন্য অবশ্য প্রোটোকল মেনেই পদক্ষেপ করা হচ্ছে। গত রাতে দিল্লি বিমানবন্দরে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ফন ডার লেয়েনকে অভ্যর্থনা জানাতে হাজির ছিলেন কেন্দ্রীয় শিল্প এবং বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী অনুপ্রিয়া পটেল।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র বলছে, ভারতীয় সময় দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক আসবেন। তাঁকে কেন্দ্রীয় খাদ্য-সরবরাহ এবং ক্রেতা সুরক্ষা প্রতিমন্ত্রী অশ্বিনীকুমার চৌবে অভ্যর্থনা জানাবেন। জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদাকে দুপুর সওয়া ২টোয় বিমানবন্দরে স্বাগত জানানোর দায়িত্বও অশ্বিনীর।

ইতিমধ্যেই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভ্যর্থনা জানিয়েছেন রেল ও বস্ত্র প্রতিমন্ত্রী দর্শনা জার্দোশ। ইতালির প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনিকে অভ্যর্থনা জানাবেন কৃষি প্রতিমন্ত্রী শোভা করান্ডলাজে এবং দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রপতি ইউন সুক ইওলকে দিল্লি বিমানবন্দরে স্বাগত জানাবেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর।

সূত্রের খবর, মোদী-বাইডেনের শুক্রবারের বৈঠকে নয়াদিল্লি-ওয়াশিংটন দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার নানা ক্ষেত্রের পাশাপাশি আলোচনায় আসবে ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে চিনের মোকাবিলায় ‘কোয়াড্রিল্যাটেরাল সিকিউরিটি ডায়লগ’ (কোয়াড)-এর চার সদস্যরাষ্ট্রের (ভারত, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া এবং জাপান) সমন্বয় আরও নিবিড় করার প্রসঙ্গও।

নিউজ /এমএসএম

দয়া করে খবরটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই ক্যাটাগরিতে আরো যেসব খবর রয়েছে
All rights reserved © UKBDTV.COM
       
themesba-lates1749691102