রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:৩৭ অপরাহ্ন

প্রধানমন্ত্রী

আমাদের আঘাত দেয়ার জন্য খালেদা জিয়া মিথ্যা জন্মদিন পালন করতেন

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • খবর আপডেট সময় : বুধবার, ৯ আগস্ট, ২০২৩
  • ৮৪ এই পর্যন্ত দেখেছেন

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যা দিবস ১৫ আগস্টে তার পরিবারকে কষ্ট দেয়ার জন্য খালেদা জিয়া মিথ্যা জন্মদিন পালন করতো বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ১৫ আগস্ট খালেদা জিয়ার জন্মদিন না, তারপরও জন্মদিন হিসাবে কেক কেটে আনন্দ উল্লাস করতেন।

যেদিন আমাদের চোখের পানি পড়ে, মিথ্যা জন্মদিন বানিয়ে সেদিন তিনি উৎসব করতেন। শুধুমাত্র আমাদেরকে আঘাত দেয়ার জন্য এটা করতেন।

আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের ঘর হস্তান্তর কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আজ বুধবার (৯ আগস্ট) সকালে তিনি এ কথা বলেন। আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মধ্যে ২২ হাজার ১০১টি বাড়ি হস্তান্তরের মধ্যদিয়ে আরো ১২টি জেলাকে গৃহহীন ও ভূমিহীনমুক্ত ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী।

নিজ বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গৃহহীন ও ভূমিহীন পরিবারগুলোর মধ্যে বাড়ি বরাদ্দের ঘোষণা দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১৫ আগস্ট এ আমি এবং আমার ছোট বোন রেহানা বিদেশে ছিলাম বলে বেঁচে গিয়েছিলাম। ছয় বছর দেশে আসতে পারেনি।

১৫ আগস্ট এর হত্যাকাণ্ডের পর ষড়যন্ত্রে রাজনীতি শুরু হয়েছিল। অবৈধভাবে ক্ষমতার দখল করেছিল। জিয়াউর রহমান নিজেকে রাষ্ট্রপতি হিসাবে ঘোষণা দেন। বাংলাদেশের আরেক মীরজাফর খুনী মোস্তাককে দিয়েই জিয়াউর রহমান রাষ্ট্রপতি ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, ক্ষমতা এসে খুনিদের বিচার হবে না সেই আইন করা হয়। বাংলাদেশের যেকোনো নাগরিক তার স্বজন মারা গেলে বিচার চাইতে পারে, আমাদের সেই অধিকার ছিল না। আমরা বিচার চাইতে পারতাম না। খুনিদেরকে বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দিয়ে পুরস্কৃত করা হয়েছে। তাদেরকে রাজনীতি করার সুযোগ দেয়া হয়।

জেনারেল এরশাদ এবং খালেদা জিয়া দুইজনে ভোট চুরি করে তাদেরকে পার্লামেন্টে বসায়। রাষ্ট্রপতি এরশাদ সে-ও জিয়ার পথ ধরে ক্ষমতা দখল করেছিল।

নিউজ /এমএসএম

দয়া করে খবরটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই ক্যাটাগরিতে আরো যেসব খবর রয়েছে
All rights reserved © UKBDTV.COM
       
themesba-lates1749691102