বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ১২:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সিলেটের ৩ উপজেলায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন যারা দেশ ও জনগণের কল্যাণে কাজ করার জন্য বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম এর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক প্রকাশ নবীগঞ্জ উপজেলার দিনারপুরে ইয়াবা ও গাঁজাসহ ২জন গ্রেপ্তার হুয়াওয়ে আইসিটি কম্পিটিশনে অংশ নিতে চীনে বাংলাদেশ দল ছাতক উপজেলা নির্বাচন থেকে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী শহিদুজ্জামান এর প্রার্থীতা প্রত্যাহার কৃষি উৎপাদন বাড়াতে অস্ট্রেলিয়ার সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইরানের প্রেসিডেন্ট রাইসির মৃত্যুতে বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ফারুক আলম টবি বেসরকারিভাবে নির্বাচিত রাণীশংকৈল উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে আহম্মদ হোসেন বিপ্লব বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত

মৌলভীবাজারে পানি নিষ্কাশনের একমাত্র খাল 

২৫ কোটি টাকার প্রকল্প কোদালিছড়া খননের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • খবর আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
  • ৭৭ এই পর্যন্ত দেখেছেন

মৌলভীবাজার শহরের পানি নিষ্কাশনের একমাত্র খাল কোদালি ছড়া। অন্তত আড়াই কিলোমিটার এর এই ছড়া হয়ে পুরো শহরের পানি গিয়ে হাইল হাওরে পড়ে। দীর্ঘদিন খনন না হওয়ায় শতাব্দীর প্রাচীন এই ছড়া ভরাট হয়ে যাওয়ায় প্রতিবছর বর্ষা এলেই শহরের অধিকাংশ এলাকা জলমগ্ন থাকে। এমনকি ভারী বৃষ্টিপাত হলে শহরের বড় অংশে ভয়াবহ জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়।

রবিবার সকালে সরজমিন দেখা যায়, কোদালি ছড়া উন্নয়ন প্রকল্প শহরের প্রেসক্লাব মোড় ও ঢাকা বাসট্যান্ড এলাকায় বিপুল সংখ্যক শ্রমিক কাজ করছেন। তারা কোদালি ছড়া খনন করে মাটি পারে তুলছেন। পাশাপাশি ছড়ার দুই পাশে স্লাব বসিয়ে গাইড ওয়াল দিচ্ছেন। শ্রমিকেরা জানান প্রকল্পের কাজ দ্রুত শেষ করার জন্য অতিরিক্ত শ্রমিক নিয়োজিত করা হয়েছে। ঠিকাদার দ্রুত কাজ শেষ করার তাগিদ দিয়েছেন।

মৌলভীবাজার শহরে পানি নিষ্কাশনের একমাত্র খাল কোদালিছড়া খননের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। শহরের জলাবদ্ধতা নিরসন ও নাগরিকদের বিনোদন খরা ঘোচাতে মৌলভীবাজার পৌরসভা ২৫ কোটি টাকার এই প্রকল্প গ্রহণ করেছে । আর অর্থায়ন করছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। আগামী এক বছরে পুরো প্রকল্পের কাজ শেষ হবে বলে আশা করছেন পৌরসভার মেয়র ফজলুর রহমান।

মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র ফজলুর ন ঢাকা টাইমসকে বলেন পুরো প্রকল্পের কাজ শেষ হলে কোদালি ছড়া হয়ে শহরের পানি নিষ্কাশনের পাশাপাশি নাগরিকদের জন্য অন্যতম বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত হবে শহরের একসময়ের এই’ মরা খাল’।
মেয়র জানান, প্রকল্পে আছে ওয়াকওয়ে।

সেখানে শহরের নাগরিকদের হাটার ব্যবস্থা থাকবে। আছে গাইডওয়াল ও রেলিং।এছাড়া হাটতে যাওয়া লোকজনের প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেওয়ার জন্য রয়েছে টয়লেট। আর দর্শনীয় লাইটিং ও ফুলের বাগানসহ আরও অনেক কিছু। শহরের নাগরিকদের মনের খোরাকের জন্য এভাবে সাজানো হচ্ছে ।

নিউজ /এমএসএম

দয়া করে খবরটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই ক্যাটাগরিতে আরো যেসব খবর রয়েছে
All rights reserved © UKBDTV.COM
       
themesba-lates1749691102