সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৩:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁওয়ে টেকসই নদী ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ম‌হিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী সৈয়দা রা‌জিয়ার বসত ঘরে অগ্নিকাণ্ডে তত্বাবধায়ক নিহত গুণীজনদের সম্মানিত করা সকলের দায়িত্ব ও কর্তব্য- পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশে ভ্যাকসিন সেন্টার স্থাপনে অক্সফোর্ড গ্রুপের সহযোগিতা চেয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মিডিয়া ব্যক্তিত্বদের সাথে বাংলাদেশ কনসাল জেনারেল এর মতবিনিময় অনুষ্ঠিত প্রতিভাবান অস্বচ্ছল খেলোয়াড়দের কল্যাণে প্রধানমন্ত্রী সবসময় সহানুভূতিশীল-পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের মধ্যে প্রত্যাবর্তন সংক্রান্ত এসওপি স্বাক্ষর সম্পন্ন উন্নয়নের গতি ত্বরান্বিত করতে প্রকল্পগুলো দ্রুত সম্পন্ন করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ শেখ হাসিনাকে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

রোগ ঠেকানোর ওষুধ

লাইফস্টাইল ডেস্ক
  • খবর আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২২
  • ১০৩ এই পর্যন্ত দেখেছেন

রোগবালাই ঠেকাতে শরীরের আছে নিজস্ব বাহিনী, যার নাম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। সেই বাহিনীর রসদ জোগাতে চাই বিশেষ কিছু খাবার। একনজরে দেখে জেনে নিন, কী সেই খাবারগুলো—

গ্রিন টি

কেউ খান শখ করে, কেউ বা স্বাস্থ্যের কথা ভেবে ভ্রু কুঁচকে চুমুক দেন ওষুধের মতো। যেভাবেই খান না কেন, গ্রিন টিতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ক্যানসার ঠেকাতে ওস্তাদ।

মরিচ

ঝালের নিন্দুকরা এবার মুখে কুলুপ আঁটুন। ঝাল খেলে বাড়ে বিপাকের গতি। আবার রক্ত পাতলা করার প্রাকৃতিক অনুঘটক হিসেবেও কাজ করে এটি। মরিচে থাকা বিটা-ক্যারোটিন রক্তে গিয়ে ভিটামিন এ-তে পরিণত হয়ে লড়াই করে নানান সংক্রমণের বিরুদ্ধে। প্রোস্টেট ক্যানসারের বিরুদ্ধেও মরিচের গুণ সর্বজনবিদিত।

রসুন

শুধু ড্রাকুলা নয়, ঠান্ডাজনিত রোগবালাইকেও দূরে রাখবে রসুন। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার দুই গুরুত্বপূর্ণ সেনা টি-লিম্ফোসাইট ও ম্যাক্রোফেইজেসের কার্যকারিতাও বাড়ায় এ মসলা।

ছবি : সংগৃহীত

হলুদ

আয়ুর্বেদ ও চীনা কবিরাজিতে হাজার বছর ধরে হলুদের ব্যবহার হয়ে আসছে। নানা ধরনের ফ্লুর ভাইরাসের বিরুদ্ধে এটি বীরের মতো লড়াই করে।

দারুচিনি

রক্তে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ কমানো ও রক্ত জমাট বাঁধতে বাধা দেয় দারুচিনিতে থাকা উপাদান। রক্তে চিনির ওপরও খবরদারি করে এটি। যে কারণে ঠেকাতে পারে টাইপ-২ ডায়াবেটিস। খারাপ কোলেস্টেরলের বিরুদ্ধেও ঢাল ধরে রাখে দারুচিনি।

মিষ্টিআলু

বিপাকের সময় যাতে শরীরে বেশি করে পুষ্টি উপাদান শোষিত হয়, সেই ব্যবস্থা করে মিষ্টিআলুতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এর বাইরে আলঝেইমারস, যকৃতের রোগ, পারকিনসনস, সিস্টিক ফিব্রোসিস, হৃদরোগ ও ডায়াবেটিসেও এর উপকারের প্রমাণ পাওয়া গেছে।

মিষ্টিকুমড়া

বিটা-ক্যারোটিনে ভরপুর মিষ্টিকুমড়া। মরিচের মতো এটাও শরীরে তৈরি করে ভিটামিন এ।

রোগ ঠেকানোর রসদ
ড্রাগন ফলের ৯ উপকারিতা

ঝিনুক

দামি রেস্তোরাঁয় একে বলা হয় অয়েস্টার। কারও মতে, খেতে মন্দ নয় ঝিনুকের ডিশ। আছে ওষুধি গুণ। জিঙ্কসমৃদ্ধ ঝিনুক আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেবে।

টমেটো

দিনে দিনে শরীরের কোনো অঙ্গ ক্ষতিগ্রস্ত হতে থাকলে তাকে বলে ডিজেনারেটিভ ডিজিজ। আরও অনেক উপকার তো আছেই। তবে টমেটোর বড় গুণ হলো এটি যাবতীয় ডিজেনারেটিভ রোগ ঠেকিয়ে রাখে।

ছবি : সংগৃহীত

ডুমুর

ডুমুরের ফুল দেখা যাক-না যাক, ফলের উপকার ঠিকই ধরা পড়েছে। পটাশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর এটি। শরীরে পি-এইচ ব্যালান্স (রক্তের অ্যাসিডিটির একটি সূচক) বজায় রাখে ডুমুর ওরফে ফিগ। যার কারণে শরীরে সহজে জীবাণু আক্রমণ করতে পারে না। ডুমুরে থাকা ফাইবার রক্তে চিনির পরিমাণও কমায়। এতে মেটাবোলিক সিনড্রোমের ঝুঁকিও কমে।

মাশরুম

শরীরে শ্বেত রক্তকণিকা বাড়ায়। আর ওই কণিকা কাজ করে ঝাড়ুদারের। বিদায় করে রক্তের দূষিত উপাদান। আবার কোষের জন্য মুক্ত র‍্যাডিকেল যে বিপদ ডেকে আনতে পারে (যেমন—ক্যানসার), সেটার ঝুঁকিও কমায় মাশরুম।

বেদানা

আনার বা বেদানা যে নামেই ডাকুন তাকে, নিয়ম করে যদি এক গ্লাস জুস খাওয়া যায়, তবে ক্যানসারসহ আরও অনেক রোগ থাকবে বিপৎসীমার বাইরে। সূত্র : মেডিক প্রেজেন্টস

নিউজ /এমএসএম

দয়া করে খবরটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই ক্যাটাগরিতে আরো যেসব খবর রয়েছে
All rights reserved © UKBDTV.COM
       
themesba-lates1749691102